‘মনে হয় বিশ্ব রোহিঙ্গাদের দায়িত্ব নেবে না’

 সংশয় প্রকাশ করে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, রোহিঙ্গা সঙ্কট বৈশ্বিক কষ্টের একটি বিষয় হলেও আমার মনে হয়, বিশ্ববাসী রোহিঙ্গাদের দায়িত্ব নেবে না। সেক্ষেত্রে আমাদের বৈশ্বিকভাবে কূটনৈতিক চেষ্টা অব্যাহত রাখতে হবে।

মঙ্গলবার (১২ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স, বাংলাদেশের (আইডিইবি) মিলনায়তনে ‘রোহিঙ্গা ক্রাইসিস: গ্লোবাল চ্যালেঞ্জ’ শীর্ষক এক সেমিনারে তিনি এ শঙ্কা প্রকাশ করেন।

পরিকল্পনা মন্ত্রী মান্নান বলেন, ‘মিয়ানমার আমাদের প্রতিবেশী রাষ্ট্র। আমরা তাদের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক বজায় রাখতে চাই। আমরা বিশ্বাস করি, রোহিঙ্গা সঙ্কট সমাধানে ধৈর্য ও সহিষ্ণুতার সঙ্গে তারাও (মিয়ানমার) আমাদের সঙ্গে কথাবার্তা বলবে, সহযোগিতা করবে।

‘বাংলাদেশ কূটনৈতিকভাবে মিয়ানমারের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে এই সমস্যা সমাধান করতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। আর আন্তর্জাতিক বিশ্বকে বলবো, বিশেষ করে জাতিসংঘ, আসিয়ান, ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ অনেকেই আছে। তারাও যেনো এ বিষয়ে জোরালো ভূমিকা রাখে।’

তিনি বলেন, ‘রোহিঙ্গা সঙ্কট সমস্যা শুধু বাংলাদেশের সমস্য নয়, এটা বিশ্বজুড়ে একটা কষ্টের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। এক্ষেত্রে তাদেরও উচিত দায়িত্ব নিয়ে মিয়ানমারকে চাপে রাখা। তবে আমার মনে হচ্ছে, বিশ্ববাসী রোহিঙ্গাদের দায়িত্ব নেবে না।’

রোহিঙ্গাদের নির্যাতনের কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের যে ক্ষতি হয়েছে তার আসল মূল্য নির্ধারণ সম্ভব নয়। ঘর ছাড়ার যে ব্যথা, লাঞ্ছিত হওয়ার যে কষ্ট, ধর্ষণ হওয়ার যে অপমান-এসবের মূল্য দেওয়া সম্ভব হয়।

‘আমাদের বিশ্বাস মিয়ানমারের সঙ্গে কূটনৈতিকভাবে এ সঙ্কট সমাধান করে রোহিঙ্গাদের জন্মভূমি রাখাইনে পাঠানো হবে। বাংলাদেশ আন্তর্জাতিকভাবে সে চেষ্টাও চালিয়ে যাচ্ছে,’ যোগ করেন তিনি।