বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যে মতপার্থক্য: ভেঙ্গে যাচ্ছে বিএনপি?

অনেকদিন থেকেই বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যে চলছে মতবিরোধ। দলের স্থানীয় নেতাদের মধ্যে সারা দেশেই রয়েছে দ্বন্দ্ব। তবে এ দ্বন্দ্ব দলের ভেতরে অন্তর্কোন্দলে পরিণত হয়েছে মূলত দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের দ্বন্দ্ব ঘিরেই। দলের ভেতরে দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে গেছে বিএনপি। ‘খালেদা গ্রুপ’ আর ‘ফখরুল গ্রুপ’ তবে কি বিএনপির ভাঙ্গনেরই পূর্বাভাস?

গত ৩১ অক্টোবর মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে মির্জা ফখরুলের এক মন্তব্যকে ঘিরেই এই দ্বন্দের সূত্রপাত। রোহিঙ্গা সংকটে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রশংসা করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘৭১ এ ভারতের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী যেমন বাঙ্গালীদের আশ্রয় দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও তাই করছেন’। বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া সহ রোহিঙ্গাদের দেখতে ঢাকা থেকে কক্সবাজারের উদ্দেশে রওনা দেওয়ার ঠিক আগ মুহূর্তে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এ কথা বলেছিলেন । প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে এমন নিষ্কলঙ্ক সত্য এই মন্তব্যেই রেগে যান কূটকৌশলী বেগম জিয়া।

মির্জা ফখরুলের ওপর ক্ষোভ ঝেড়ে বেগম জিয়া বলেন, ‘আপনি তো কখনো শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে একটি কথাও কোনোদিন বলেন না। এখন শেখ হাসিনাকে মহান করার পরিকল্পনায় নেমেছেন। আপনি বিএনপির মহাসচিব নাকি অন্যকিছু।’ বেগম জিয়া দলের মহাসচিবকে আরও বলেন, ‘এত যে শেখ হাসিনাকে এত গুণগান শুরু করেছেন, তিনি আপনাকে কী দেবেন?’ জানা যায়, এবার বেগম জিয়ার সঙ্গে দলের মহাসচিবের লন্ডনে যাবার কথা ছিল। কিন্তু তারেক জিয়ার অনাগ্রহেই শেষপর্যন্ত ফখরুলের লন্ডন যাওয়া হয়নি।

আন্দোলনমুখী বেগম জিয়ার বিগত ইতিহাস বলে তিনি কখনোই বিরোধী দলগুলোর প্রতি সদয় ব্যবহার দেখাননি, বরং তার প্রতিটা সমাবেশেই বক্তব্য ছিল বিরোধী দলের সমালোচনা করে। দলের মাঠ পর্যায়ের কর্মীরাও রীতিমতো বারবার বিব্রত খালেদা জিয়ার এমন আচরণে। কয়েকদিন আগে নির্বাচনে অংশগ্রহণ নিয়ে খালেদার আর দলের আরেক লজ্জা তারেকের মতপার্থক্যের রুপ মানুষ গণমাধ্যমে দেখেছিল। অনেক জল ঘোলা করার পর অবশেষে দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না বলে ঘোষণা দিয়েছে বিএনপি। দীর্ঘদিন থেকে নির্বাচনের অপেক্ষায় থাকা দলের মাঠ পর্যায়ের কর্মীদের জন্য যা সত্যিই হতাশার।

ইতিহাস আমাদের বারংবার শিক্ষা দেয়, সত্যের জয় বৃথা যায় না কখনো। মিথ্যা আর অপকৌশলীরা ধ্বংস হয়েছে প্রতিবারই। সেই ধ্বংসের বালিই উড়তে শুরু করেছে বিএনপির ভেতরে!

No Comments

Leave a Comment